1. admin@gonopotrika.com : admin :
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০২:৪৬ অপরাহ্ন

অভয়নগরে অসাধু নামধারী সাংবাদিকদের কবলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বেসরকারি ক্লিনিক গুলো।

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৫৯ বার পঠিত

 

মোঃ কামাল হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধি:

যশোরের অভয়নগর উপজেলার সরকারি-বেসরকারি জনসেবা চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোতে অসাধু নামধারী সাংবাদিকদের কবলে পড়ে ব্যহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা। তথ্য অনুসন্ধানে এমনটিই উঠে এসেছে।

জানা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ একাধিক বেসরকারি ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছে। যে সব স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানে অনিয়মের সূত্র ধরে অভয়নগরে সাংবাদিক পরিচয়ধারী একাধিক ব্যক্তিদ্বয় অর্থনৈতিক ফায়দা লুটতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি ডাক্তারদের বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে বিভিন্ন সময় অনৈতিক ভাবে সরকারি ঔষধ ও নগদ টাকা হাতিয়ে নেন একশ্রেণীর সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া অসাধু ব্যক্তি। ফলে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগণ পড়েন চরম বিপাকে।

নামপরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক চিকিৎসক বলেন, কিছু সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া ব্যক্তিদের জন্য আমাদের স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা জনসাধারণ কে সেবা দেয়া কঠিন হয়ে পড়ে, এসব নামধারী সাংবাদিকদের এমন কর্মকান্ড বন্ধ হওয়া জরুরি।

উপজেলার নওয়াপাড়া ক্লিনিকপাড়ায় অবস্থিত এক ক্লিনিক মালিক জানান, সন্ধ্যা হলেই বিভিন্ন পত্রিকা পরিচয়ে সাংবাদিকদের আনাগোনা, বিজ্ঞাপণের নামে মোটা অংকের চাঁদা চাওয়া এখন নিত্যদিনের কাজ হয়ে পড়েছে। বিজ্ঞাপণ ও চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে বিভিন্ন নিউজ করে নাজেহাল করে ভয় দেখানোসহ নানাধরণের হয়রানির শিকার হচ্ছি, আমরা কি আর বলবো?

ঘটনার অনুসন্ধান করতে সূত্র ধরে উঠে আসে সাংবাদিক পরিচয়ে অপ-সাংবাদিকতার এক মহা ফিরিস্তি। অভয়নগরে বিভিন্ন সাংবাদিক নিজেকে বড় বড় সাংবাদিক ও পত্রিকার সম্পাদক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ক্লিনিক- হাসপাতাল থেকে মাসে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি , ওই চক্রের খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অনুমোদিত কোন পত্রিকায় কাজ করেনা, বা বছরে একটি নিউজও পত্রিকায় প্রকাশিত হয়না, সেই সব পরিচয়ধারী সাংবাদিকদের এহেন কর্মকান্ড, হুংকার দিয়ে সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া ব্যক্তিদের অনৈতিক সুযোগ সুবিধা নেওয়ার কারণে হাসপাতাল ক্লিনিক গুলোতে অনিয়মসহ হ -য-ব-র-ল কারবার হতে থাকে।

সূত্রে আরো জানা গেছে, ভূয়া পরিচয় দেওয়া সাংবাদিকরা কৌশলে রাজনৈতিক নেতা ও উপজেলা প্রসাশনসহ সক্ষতা গড়ে তোলে, ব্যবসায়ী মহল থাকে আতংকে। সকল কিছুকে পিছনে ফেলে অভয়নগরে সাংবাদিক মহলে হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজমান। সেই সাথে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায়ে ব্যস্ত সাংবাদিকতার আড়ালে জনমানুষের সাথে চলে অভিনব প্রতারণা। ফলে ওই সব হুংকার দেওয়া নিজেকে অমুক তমুক সংগঠনের বড় বড় পদ পদবী ধারী সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজির মতো অপ-সাংবাদিকতার কারণে প্রকৃত স্বচ্ছ সাংবাদিকদের জনমানুষের কাছে হতে হয় নাজেহাল।

সচেতন মহল মনে করেন, অনতিবিলম্বে সাংবাদিকতার আড়ালে অপ-সাংবাদিকতা বন্ধে সরকারি ভাবে সঠিক তদন্ত স্বাপেক্ষে সাংবাদিক পরিচয় ধারীদের নিউজসহ তাদের পরিচয়পত্র যাচাই-বাছাই করে অনৈতিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অনৈতিক চাঁদাবাজি বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হোক।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ গণ পত্রিকা
Theme Customized By Shakil IT Park