1. admin@gonopotrika.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উপজেলা চেয়ারম্যানকে সম্মাননা ক্রেস্ট উপহার দিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আমতলীতে ২য় শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক কোটা বিরোধী আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর নির্যাতনের কারণে প্রতিবাদ মিছিল। জাতীয় রপ্তানী ট্রফির স্বর্ণ পদক পেল সিআইপি মেজবাহ উদ্দিন খান রানীশংকৈলে ৩০০গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার -১ ধামইরহাটে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার কর্তৃক আলতাদিঘী জাতীয় উদ্যানে শোভাবর্ধনকারী গাছ রোপন আত্রাইয়ে পানিতে ডুবে আবু বক্কর সিদ্দিক নামে এক শিশুর মৃত্যু আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক পিরোজপুর শাখা কর্তৃক গ্রাহক সচেতনতা সপ্তাহ পালিত মহান একুশের শহীদ স্মরণে প্রস্তুতি সভা তৃনমূল দলের সোনারপুর জয় হিন্দ প্রেক্ষাগৃহে রাজারহাটে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক তিন দিন ব্যাপী ওরিয়েন্টশন সভা অনুষ্ঠিত

খাওয়ার লোভ কমাবেন যেভাবে

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৯ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১১২ বার পঠিত

অতিরিক্ত খাওয়ার সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। রাতে ভালো ঘুম না হওয়া কিংবা মানসিক চাপের কারণেও মানুষের মধ্যে অতিরিক্ত খাওয়ার আকাঙ্খা বাড়ে। অতিরিক্ত খাওয়ার সমস্যা স্থূলতার অন্যতম কারণ। আসলে খাওয়ার লোভ সামলানো ততটা সহজ নয়। বিভিন্ন খাবারের প্রতি সবারই ক্রেভিংস বা লোভ থাকে।

বিশেষ করে জাঙ্ক ফুড ও মিষ্টি খাবারের প্রতি সবারই লোভ থাকে। আর এসব খাবার রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়, ফলে ক্ষুধাও বেড়ে যায়। এই অভ্যাস শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার কারণ হতে পারে।

পছন্দের কোনো খাবার দেখলে খাওয়ার আগে নিজের কথা ভাবুন। এক্ষেত্রে নিজেকে সময় দিন ও ভাবুন যে ওই খাবার খাওয়া আপনার জন্য কতটা ক্ষতিকর হতে পারে।

বিশেষ করে অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার খেতে ইচ্ছে করলে কয়েকটি খেজুর বা কিশমিশ মুখে নিয়ে চিবাতে থাকুন। দেখবেন ক্রেভিংস কমে যাবে।

ফিট থাকতে কতজন কতকিছুই না করেন। আপনি যদি স্থূলাকায় হন তাহলে যে কোনো লোভনীয় খাবার খাওয়ার আগে অবশ্যই দুবার ভাবুন।

মেনোপজের সময় নারীদের মিষ্টিজাতীয় খাবারের প্রতি লোভ বাড়ে। কারণ তখন শরীরের চিনির প্রয়োজন হতে পারে। এছাড়া শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে গরুর মাংস কিংবা নোংরা খাবারের প্রতি আগ্রহ বাড়ে।

আবার প্রোটিন-সমৃদ্ধ খাবার খেতে ইচ্ছে করলে বুঝতে হবে আপনার শরীর পর্যাপ্ত প্রোটিন পাচ্ছে না। সেক্ষেত্রে সঠিক পরিমাণে প্রোটিন গ্রহণ করুন।

২০১৫ সালে ৬১৯ জনের উপর করা এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, দীর্ঘস্থায়ী মানসিক চাপ উল্লেখযোগ্যভাবে মানুষের খাওয়ার আকাঙ্খা বাড়িয়ে দেয়। এর কারণ হলো, দীর্ঘস্থায়ী চাপ ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণের সঙ্গে সম্পর্কিত হরমোন স্তরের ক্ষতি করতে পারে।

এক্ষেত্রে মানসিক চাপে থাকলে লোভনীয় খাবারের প্রতি আগ্রহ বাড়ে। যখনই বুঝবেন আপনি মানসিক চাপে ভুগছেন তখন খাওয়ার চিন্তা না করে হাঁটতে যান, গান শুনুন, সহকর্মী বা বন্ধুর সঙ্গে মজার কথা বলুন।

অনিদ্রা বিভিন্ন খাবারের প্রতি লোভ আরও বাড়িয়ে দেয়। ২৫৬ জন শিশু ও কিশোর-কিশোরিদের উপর ২০১৯ সালের এক সমীক্ষা অনুসারে, অনিদ্রা ক্ষুধা আরও বাড়িয়ে দেয়।

এর কারণ হলো ঘুমের অভাবে মস্তিষ্কের ফ্রন্টাল কর্টেক্স ও অ্যামিগডালাকে প্রভাবিত করে, যা অত্যন্ত সুস্বাদু ও ক্যালোরি-সমৃদ্ধ খাবারের জন্য আপনার আকাঙ্খা বাড়িয়ে তুলতে পারে।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ গণ পত্রিকা
Theme Customized By Shakil IT Park