1. admin@gonopotrika.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০১:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উপজেলা চেয়ারম্যানকে সম্মাননা ক্রেস্ট উপহার দিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আমতলীতে ২য় শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক কোটা বিরোধী আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর নির্যাতনের কারণে প্রতিবাদ মিছিল। জাতীয় রপ্তানী ট্রফির স্বর্ণ পদক পেল সিআইপি মেজবাহ উদ্দিন খান রানীশংকৈলে ৩০০গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার -১ ধামইরহাটে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার কর্তৃক আলতাদিঘী জাতীয় উদ্যানে শোভাবর্ধনকারী গাছ রোপন আত্রাইয়ে পানিতে ডুবে আবু বক্কর সিদ্দিক নামে এক শিশুর মৃত্যু আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক পিরোজপুর শাখা কর্তৃক গ্রাহক সচেতনতা সপ্তাহ পালিত মহান একুশের শহীদ স্মরণে প্রস্তুতি সভা তৃনমূল দলের সোনারপুর জয় হিন্দ প্রেক্ষাগৃহে রাজারহাটে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক তিন দিন ব্যাপী ওরিয়েন্টশন সভা অনুষ্ঠিত

বদলগাছীতে বিয়ের দাবিতে অনশন, অতঃপর গ্রামবাসীর সহযোগিতায় ছেলের বাড়িতে প্রবেশ।

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২৩
  • ২২৫ বার পঠিত

 

মোঃ সারোয়ার হোসেন অপু, বিশেষ প্রতিনিধি:

নওগাঁর বদলগাছীতে বিয়ের দাবীতে মুসলিম যুবকের বাড়ীতে অনশন করছে ২৫ বছরের হিন্দু তরুণী কণিকা রাণী। ঐ তরুণীর বাড়ীতে আসার খবর পেয়ে গত ২৫ অক্টোবর বাড়ীর দরজায় তালা দিয়ে উধাও প্রেমিক আব্দুল মুমিন (৩৩) ও তার পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউপির ভোলার পালশা গ্রামে। অনশনরত তরুণীর বাড়ি গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানায় এবং অভিযুক্ত প্রেমিক বদলগাছীর কোলা ইউপির ভোলার পালশা গ্রামের মৃত আজির উদ্দিনের ছেলে বলে জানা যায়।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, মুমিন সহ পরিবারের সকলে বাড়িতে তালা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় ২৫ অক্টোবর ঐ গ্রামের জনৈক এক বৃদ্ধের বাড়িতে আশ্রয় নেন তরুণী কণিকা রাণী।অতঃপর ঐ তরুণী ২৭ অক্টোবর গ্রামবাসীর সহযোগিতায় মুমিনের বাসার তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে। এরই মধ্যে মুমিনের মা সহ তার ভাই ও ভাবি তা জানতে পেয়ে বাসায় ফিরে আসে।

এ বিষয়ে মুমিনের মা আছিয়া বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, আমরা সব মেনে নিয়েছি শুধু আমাদের ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিনা, তার সাথে যোগাযোগ হলে মেয়েটিকে ধর্ম ত্যাগ করিয়ে আমাদের ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে দিবো। মেয়েটি হিন্দু হওয়ায় একটু সমস্যা হচ্ছে। তরুণী কণিকা রাণী সাংবাদিকদের জানান, মুমিনের পরিবার আমাকে মেনে নিয়েছে শুধু মুমিনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিনা। মুমিন আমাকে যদি বিয়ে না করে তাহলে এখানেই আমি আমার জীবন শেষ করে দিবো। আব্দুল মুমিনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোন টি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যপারে কোলা ইউপি চেয়ারম্যান শাহীনুর ইসলাম স্বপন বলেন, আমার সঙ্গে ছেলের পরিবারের লোকজন যোগাযোগ করেছিল।আমি বলেছি বিয়ের ব্যবস্হা করতে। তার পর আর কথা হয়নি। বর্তমানে মেয়েটি ছেলের বাড়ি অবস্থান করছে। ছেলে পলাতক। ভোলার পালশা গ্রামবাসি বলেন, যেহেতু মেয়ের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক করে স্বামী স্ত্রীর পরিচয়ে তিন বছর কাটিয়েছে, তাই তাঁকে বিয়ে করতে হবে। নাহলে আমরা তাঁকে সামাজিক ভাবে বয়কট করবো।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উক্ত মেয়েটি মুমিনের বাড়িতে তাঁর পরিবারের সাথে অবস্থান করছিল।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ গণ পত্রিকা
Theme Customized By Shakil IT Park